Thursday, June 20, 2024
HomeBreakingউঠে গেছে রাস্তার পিচ মাটির রাস্তায় পরিণত প্রধান সড়ক

উঠে গেছে রাস্তার পিচ মাটির রাস্তায় পরিণত প্রধান সড়ক

নিজস্ব সংবাদদাতা, শিলিগুড়ি ৪ এপ্রিল:নামেই পিচের রাস্তা, ছবি দেখলে মনে হবে মাটির রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন আপনি,আর মাটিতে যাতে কাদা না হয়, তার জন্য অল্প ছিটানো রয়েছে পাথর ,ব্যাস। এই হল শিলিগুড়ি সংলগ্ন ফুলবাড়ি টোল থেকে মহানন্দা ব্যারেজ যাওয়ার সড়কের হাল। দীর্ঘদিন ধরে এই সড়কের বেহাল অবস্থা হওয়া সত্ত্বেও হেলদোল নেই প্রশাসনের। প্রতিদিন হাজার হাজার দূর পাল্লার ভারী যানবাহন থেকে শুরু করে স্থানীয় মানুষদের ব্যবহারের একমাত্র পথ এটি। ফুলবাড়ী টোল প্লাজা পর্যন্ত সড়ক চকচকে, আর তারপর থেকেই শুরু হয় নরক যন্ত্রণা। ধুলোবালি ও ভাঙাচোরা রাস্তায় অতিষ্ঠ পথে চলাচলকারী সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে যানবাহন চালকেরা। মাসের পর মাস এই ভয়ংকর পরিস্থিতি সড়কের হয়ে থাকা সত্ত্বেও কেন প্রশাসন কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না তা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। সামনেই লোকসভা নির্বাচন , পথ চলতি মানুষজন বলছেন, ভোটের আগেই যদি এই হাল হয় তাহলে আর কবে ঠিক হব? তাদের বক্তব্য , ভোটের আগে ভোট পাওয়ার আশায় রাজনৈতিক দলগুলি রাস্তাঘাট ঝাঁ চকচকে করে সাধারণ মানুষের মন ভোলায়। কিন্তু এখানে তো তাও চলছে না । কবে এই রাস্তা ঠিক হবে তা অজানা। প্রতিদিন এই সড়ক দিয়ে ছাত্রছাত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ যাতায়াত করেন । প্রত্যেককেই ধুলোবালির এই পথ পেরোতে নাজেহাল হতে হয়। ভাঙাচোরা রাস্তার পাশাপাশি এই রাস্তায় হয়েছে বড় বড় গর্ত, আর এই কারণেই মাঝে মাঝে তৈরি হয় যানজট। কারণ মাঝেমধ্যেই বিকল হয়ে যায় যানবাহন। অপরদিকে মহানন্দা ব্যারেজ পার্শ্ববর্তী এলাকায় প্রচুর মানুষ ঘুরতে যান, এলাকাতে রয়েছে একটি বড় বিনোদনের পার্কও। এই বেহাল রাস্তার জন্য একটু সময় কাটাতে আসা মানুষগুলোও পড়েছেন বিপাকে। স্কুটি মোটরবাইক নিয়ে এই সড়কে চলাচল করা এখন বিপদজনক, তার ওপর মারাত্মক ধুলোতে অস্বস্তি বোধ করেন প্রত্যেকেই। অপরদিকে ছোট যানবাহন নিয়েও এই সড়কে যাতায়াত করাও এখন কষ্টের হয়ে দাঁড়িয়েছে, কারণ এবরো থেবড়ো রাস্তা আর বড় বড় গর্তের কারণে বিকল হচ্ছে গাড়ির যন্ত্রাংশ। কারণ ঝাঁকুনিতে ক্ষতি হচ্ছে যানবাহনের যন্ত্রাংশের। কিন্তু এত গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক কেন মেরামতি করছে না প্রশাসনে , তা বুঝে উঠতে পারছেন না এলাকার মানুষজন থেকে শুরু করে ওই পথে চলাচলকারী যানবাহন চালক এবং যাত্রীরা। সবাই অপেক্ষায়, কবে মসৃণ হবে এই পথ।

RELATED ARTICLES

Most Popular

Recent Comments